কবিতা

‘আমি’

মুসা আল হাফিজ

প্রবল প্রয়োজনে আমি নিজেকে খেয়ে চলছি

কেউ দেখছে না

দেখছে, যখন খাচ্ছি ভাত আর মাছ।

যুগ যুগ ধরে ঘরে বাইরে নিজেকে পরিধান করছি

তারা শুধু দেখলো মাথার টুপি!

নিজেকে যখন শরাব বানিয়ে পান করি হরদম

কেউ দেখেনি কভু

দেখলো, যখন হাতে নিলাম কাচের পেয়ালা!

পথের ধারে লাশ দেখেছে তারা

জানলো না কেউ লাশটি আমার, হত্যাকারী আমিই!

তারা হৈ চৈ করছে ভাত-টুপি, পেয়ালা আর লাশ নিয়ে!

আমি তখন বাতাসের চেয়েও গোপন রহস্যের ভেতর

আমার সাথে কথা বলছি মুখ ছাড়াই!

————————————————-

বাসনা পূর্ণ

কাউছার হাবীব

কত অভিনয় কত পরিচয়ে

হারানো অতীত মোর,

কত বেহালার সুর, এই অন্তরের

কাটতে পারেনি ঘোর।

কত স্বপ্ন, কত আশা

রঙিন ভাবনায়,

স্বার্থক হয়ে জগৎ জিয়ার

স্বর্ণিল ভাসনায়।

এ অবুঝ মনের শুকনো মনে

পড়েছে কত চরণ,

বুঝল না মন কারো আচরণ

সুপ্ত মনের ধরণ।

আজ শূন্য হৃদয় প্রতিটি উদয়ে

প্রসারিত করে হাত,

কত রোনাজারী, কত আহাজারী

নির্ঘুম নিশিরাত।

সামনে চলার হিম্মত পেতে

পিছে ফিরি বারবার,

দেখি অতীতের সব স্মৃতির পাতায়

শুধু শূন্যতা হাহাকার।

চলতে চলতে পেলাম নগর

ইলমের এক শহর,

দেখতে পেলাম কুরআন-হাদিসের

বসেছে আসর।

আজ মুসাফিরের পদস্থির

উন্নত তার শির,

পেল স্থান দারুল উলূমে

সুহবত আহমদ শফীর।

————————————————-

লাজে মরি মানুষ পরিচয়

সেলিম আহমদ

পরখ করে দেখেছি কভূ কতটুকু আমি সৎ?

অকুতোভয় কাল কেটেছি শুধু অন্যায় আর বদ।

স্রোতের সাথে ভেসে চলে তাই প্রতিশ্রুতির করেছি খেলাপ

খতিয়ে দেখি নাই আয়ুকাল গেল প্রবঞ্চনার অপলাপ।

মহামালিকের ভূবনে ঘুরিয়া করি সদা বিচরণ

যবান যেন দামি নেয়ামত করি তার সুআচরণ।

বাঁচিবো কি বলো অনন্তকাল, ফুরাবে না এ জীবন?

গভীর ধ্যানে মগ্ন সাধু পেলো বুঝি খোদার দর্শন।

ঠকবাজি আর ধোকার রাজ্যে বুকেতে দারুণ ব্যাথা

রঙের মেলায় মিশেছি বলে কে শোনে নীতিকথা।

নামের আগেতে ডিগ্রীভরা নাম যেতে হয় ভুলে

আসলে আমি মানুষ কিনা ভেবেছি নদীর কুলে।

কথায় কথায় পরদ্বেষ তাই কেউ ঘেঁষে না কাছে

কে আছে মম বৈভব সম সকলি আমার পাছে।

পশুত্ব ছাড়া কি আছে বলো আমার চরিত্র ধারায়?

বড় লজ্জা হয় দিতে আমাকে মানুষ পরিচয়।

কবিতা লিখে লাভ কিরে ভাই, সমাজ কি চায় জানো?

অসাধুর কাঁধে টাকার পাহাড় তাকে বরণ করে আনো।

বাহিরে আলো ভিতরে কালো চাকচিক্য তার লেবাস

নরপশুর এক হিংস্র ছোবল একি আদি বেলেহাজ।

স্বচ্চ থাকিতে পারিনি আজো প্রতিকূলতার ভিড়ে

পঁচা ড্রেনের পানি পান করে জীবন ফেলেছি ঘিরে।

মরিয়া হইয়া উঠেছি পড়িয়া, গোত্র পদবী চাই না ঠিকানা

চাই তোমার একটি পরিচয়, মানুষ ডিগ্রী আছে কিনা?

অনেক শিখিতে কবিতা লিখি, জানি না কবিতার মর্ম

কারো বদনে ধ্বনিত হচ্ছে, বন্ধ নাকি আমার সাহিত্য কর্ম।


Editor: Chowdhury Arif Ahmed
Executive Editor: Saiful Alam
Contact: 14/A, Road No 4, Dhaka, Bangladesh
E-mail: dailydhakatimes@gmail.com
© All Rights Reserved Daily Dhaka Times 2016
এই ওয়েবসাইটের কোন লেখার সম্পূর্ণ বা আংশিক আনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি