আজ সর্বত্র ইসলামকে হেয়প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চলছে

fileউপমহাদেশের অন্যতম বৃহৎ ও প্রাচীন দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আল-জামিয়াতুল আহ্লিয়া দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক এবং বাংলাদেশ ক্বওমী মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান, পীরে কামেল আল্লামা শাহ্ আহ্মদ শফী (দা.বা.) বলেছেন, তাক্বওয়া তথা খোদা ভীতি ছাড়া পরিপূর্ণ মুমিন হওয়া যায় না। অপরদিকে আল্লাহ্র ভয় মানুষের অন্তরে না থাকার ফলে সমাজে অপরাধ প্রবণতা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অন্তরে খোদাভীতি থাকলে কারো পক্ষে শরীয়তের হুকুম লঙ্ঘন করা, হারাম পথে চলা কিছুতেই সম্ভব নয়। তিনি বলেন, খোদাভীতির অপর নাম তাক্বওয়া, আর এই তাক্বওয়া থেকে দূরে থাকার কারণেই বর্তমানে বিশ্বব্যাপী মুসলমানগণ নানাভাবে পর্যুদস্ত ও নির্যাতিত হচ্ছে। মুসলমানদেরকে এই দুর্দশা থেকে রেহাই পেতে পূর্ণাঙ্গ তাক্বওয়া অর্জনের পাশাপাশি ঈমানী শক্তি নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে হবে। তিনি সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে মুসলমানদেরকে এক কালিমার ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

দেশের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে আল্লামা শাহ্ আহ্মদ শফী অভিযোগ করে বলেন, আজ সর্বত্র ইসলামকে হেয়প্রতিপন্ন করার চেষ্টা চলছে। আমাদের অনৈক্য আর নিজ ধর্মের মধ্যে কতিপয় গোমরাহ ও ধর্মবিরোধীর কারণেই বিধর্মীরা সুযোগকে কাজে লাগাচ্ছে। ইসলামে অসত্য, অন্যায়, সন্ত্রাস ও ষড়যন্ত্রের কোন স্থান নেই। ইসলাম ন্যায় ও শান্তির ধর্ম। ইসলামকে অনুসরণ করতে পারলে এদেশে কোন হানাহানি ও সন্ত্রাস থাকবে না। আর ইসলামী শিক্ষায়ও কোন প্রকার সন্ত্রাসের স্থান নেই।

তিনি বলেন, নতুন প্রবর্তিত শিক্ষানীতির মাধ্যমে সুকৌশলে ধর্মকে বাদ দিয়ে গোটা জাতিকে ধর্মহীন বানানোর যে গভীর চক্রান্ত করা হচ্ছে, জনগণ কখনো তা মেনে নেবে না। নৈতিকতা ও সততার অভাবে দেশ আজ দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে। এমতাবস্থায় সুশাসন ও সুনাগরিক তৈরীর জন্য শিক্ষার সর্বস্তরে ধর্মকে বাধ্যতামূলক করা দরকার। ধর্মহীন এ শিক্ষানীতির ফলে সরকারের ভাবমর্যাদা দারুণভাবে ক্ষুণ্ন করে দিয়েছে এবং দেশের মানুষ সরকারকে ইসলামের প্রতিপক্ষ হিসেবেই ভাবতে শুরু করেছে। সত্যিকারের দেশপ্রেমিক আদর্শ ও সু-নগরিক সৃষ্টির জন্য পর্যাপ্ত সময় নিয়ে জেনারেল শিক্ষা, ক্বওমি শিক্ষা ও আলিয়া শিক্ষা ধারার বিশেষজ্ঞদের সাথে আলোচনা করে জনগণের মতামতের ভিত্তিতে দেশের জনসাধারণের আবেগ-অনুভূতি ও কৃষ্টি-কালচার বিবেচনায় রেখে একটি গ্রহণযোগ্য শিক্ষানীতি প্রণয়নের জন্য দেশের উলামা-মাশায়েখ বারবার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, এখনো জানাচ্ছেন। তিনি বলেন, গণমানুষের চেতনার পরিপন্থী ও ধর্মবিরোধী শিক্ষানীতি জনগণ কোনোক্রমেই মেনে নেবে না। #


Editor: Chowdhury Arif Ahmed
Executive Editor: Saiful Alam
Contact: 14/A, Road No 4, Dhaka, Bangladesh
E-mail: dailydhakatimes@gmail.com
© All Rights Reserved Daily Dhaka Times 2016
এই ওয়েবসাইটের কোন লেখার সম্পূর্ণ বা আংশিক আনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি