প্রচ্ছদ প্রতিবেদন

ধর্মনিরপেক্ষতার অন্তরালে

  ।। মুহাম্মদ হাবীবুর রহমান ।। প্রথমেই বলে রাখতে চাই যে, বাংলাদেশে ধর্মনিরপেক্ষতার অন্তরালে ধর্ম আছে, তবে ইসলাম অনুপস্থিত। ধর্মনিরপেক্ষ মতবাদের প্রবক্তাদের বলতে শুনেছি যে, ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা নয়, বরং নির্বিঘেœ স্ব স্ব ধর্ম পালনের অধিকার নিশ্চিত করে। তবে রাষ্ট্র কোনো একটি ধর্মের প্রতি পক্ষপাত করবে না। এই ভাবনাটি অতি উত্তম। কেননা, এই উদারতার নাম পরমত সহিষ্ণুতা। এতে মানব সমাজে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় থাকে। শান্তির ধর্ম ইসলাম এর পক্ষপাতী। কুরআন পাকে আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন, “যারা আল্লাহকে ছেড়ে যাদের বন্দনা করছে, তোমরা তাদেরকে মন্দ বলিও না। কেননা, তাহলে তারা অজ্ঞানতা বশতঃ আল্লাহকে অতিরিক্ত মন্দ বলে ফেলবে”। (সূরা আনআম-১০৯)। এই আয়াত থেকে আমরা পরমত সহিষ্ণুতার শিক্ষা পাই। এটা না হলে বিভিন্ন মতামতের এই বিশ্ব অশান্ত হয়ে পড়ায় মনুষ্য বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়তো। এটা যে ধ্রুব সত্য, তার প্রমাণ আমাদের সামনে রয়েছে। বিশ্বের প্রায় সকল দেশেই মানুষে-মানুষে সংঘাত, তার ফলে রক্তপাত। আর,…(বিস্তারিত)

সর্বব্যাপী পচন প্রতিরোধ কোন পথে?

  ।। এম. আবদুল্লাহ ।। দেশে সামাজিক, নৈতিক ও মানবিক মূল্যবোধের অবক্ষয় মনে হচ্ছে সর্বগ্রাসী রূপ নিচ্ছে। নিচ্ছে, না বলে নিয়েছে বলাই বোধহয় যথার্থ হবে। পত্রপত্রিকা, সম্প্রচার মাধ্যম ও ডিজিটাল গণমাধ্যমে চোখ রাখলে রীতিমত শিউরে উঠতে হচ্ছে। এমন সব ঘটনা-অঘটনা বাস্তবে ঘটছে, যা কল্পনাকেও হার মানাচ্ছে। অবনতিশীল পরিস্থিতি অনুধাবনেও মনে হচ্ছে আমরা ব্যর্থ হচ্ছি। গত কয়েক দিনে গণমাধ্যমে উঠে আসা কয়েকটি চাঞ্চল্য সৃষ্টিকারি ঘটনায় দৃ (বিস্তারিত)...

শিক্ষা ব্যবস্থায় ধর্মহীনতার তালিম

  ।। মুহাম্মদ মনজুর হোসেন খান ।। নৈতিকতাসম্পন্ন আদর্শ জাতি গঠনের মাধ্যম শিক্ষা। অথচ আমাদের শিক্ষাঙ্গনসমূহে নৈতিক শিক্ষার অভাবেই অনেক বিপর্যয় সংঘটিত হচ্ছে। আর এ বিপর্যয় রোধে প্রয়োজন ছাত্রদের নৈতিক শিক্ষা প্রদান। আর নৈতিকতা অর্জিত হয় ধর্মীয় শিক্ষার মাধ্যমে। অতএব, নৈতিকতার উন্নয়নে ধর্মীয় শিক্ষার বিকল্প নেই। একথা দ্রুব সত্য যে, আদর্শিক নির্দেশনাবিহীন শিক্ষা ব্যবস্থা মানুষ তৈরির ক্ষেত্রে কোনো ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে (বিস্তারিত)...

নওমুসলিমা শাহনাজ বেগমের ঈমানদীপ্ত উপাখ্যান

  ।। অনুবাদ- আশরাফ করীম সিদ্দীক ।। সৎমায়ের অত্যাচার, নির্যাতন সইতে না পেরে শাহনাজ বেগম বাড়ী ছেড়ে চলে যায়। তাকে আশ্রয় দেয় দিল্লী শহরের একটি মুসলিম পরিবার। মুসলিম পরিবারের সদস্যদের আচার ব্যবহার এবং ইসলামের সুন্দর্য্যময় বিভিন্ন বিষয় দেখে তিনি ইসলামের প্রতি উদ্ভুদ্ধ হয়ে পড়েন এবং এক পর্যায়ে ইসলাম গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেন। আসুন, আমরা তার মুখ থেকেই তার ইসলাম গ্রহণের বিস্তারিত বিবরণ শুনি। জম্মু শহরের শিক্ষিত এক পরিবারে আমা (বিস্তারিত)

প্রসঙ্গঃ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা

  ।। মুহাম্মদ হাবীবুর রহমান ।। ১৯৭২ সালে স্বাধীন বাংলাদেশের সংবিধান রচিত হয়। এই সংবিধানে ৪টি মূলনীতি সংযোজিত হয়। যথা- গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, বাঙালি জাতীয়তাবাদ এবং ধর্মনিরপেক্ষতা। বলা হয়, এগুলি ছিল মুক্তি যুদ্ধের চেতনা। ১৯৭১ সালে তৎকালীন পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে নয় মাস ধরে রক্তক্ষয়ী সংগ্রাম করে পাকিস্তান থেকে বেরিয়ে এসে স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্ম হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধে বলা হয়ে থাকে, ত্রিশ লক্ষ প্রাণ বলিদান হয়েছে। (বিস্তারিত)...

ওসীয়্যাতের গুরুত্ব ও তাৎপর্য

।। হাফেয মাওলানা মাহমুদুর রহমান ।। ওসীয়্যাতের সংজ্ঞা হচ্ছে নিজের উপর আল্লাহ্ তাআলার হক্ অথবা বান্দার হক্ সংশ্লিষ্ট কোন করণীয় বা বর্জনীয় ফরয বা ওয়াজিব যদি বাকী থাকে, এমতাবস্থায় ঐ ব্যক্তির উপর তার ওয়ারিসদের প্রতি এ ব্যাপারে ওসীয়্যাত করাও ফরয বা ওয়াজিব হিসেবে গণ্য হবে। তার যিম্মায় কোন ফরয-ওয়াজিব যদি বাকী না থাকে তাহলে ওসীয়্যাত করা মুস্তাহাব। (শরহে মুসলিম-২/৩৯, তাকমিলায়ে ফাত্হুল মুলহিম-২/৯৪, ৯৫, দুররে মুখতার-৬/৬৪৮)। ওসীয়্য (বিস্তারিত)...

শায়েখ ড. আলী তানতাবী’র চিঠি- “হে আমার পুত্র”

যৌবনের তাড়নায় কর্তব্যবিমূঢ় এক যুবক ছাত্রের প্রতি শায়েখ ড. আলী তানতাবী’র চিঠি- “হে আমার পুত্র” ।। অনুবাদ- মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল আলীম ।। [বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া মিশরের এক টগবগে মুসলিম যুবক মীম হামযা। অন্যদের মত যৌবনের তাড়না তাকেও বিমূঢ় করে ফেলেছিল। চার দিকে হারামের হাতছানি। অথচ কুরআনের কড়া নিষেধাজ্ঞা। কী করবে- স্থির করতে পারছিল না। এমন সময় তার মনে জাগল, বিজ্ঞজনের মূল্যবান পরামর্শই উত্তম পাথেয় হতে পারে। কাগজ-কলম হাতে ন (বিস্তারিত)...

সর্বব্যাপী পচন প্রতিরোধ কোন পথে?

  ইসলামী আইন ও গবেষণা বিভাগ আল-জামিয়াতুল আহ্লিয়া দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম, হাটহাজারী, চট্টগ্রাম। বিয়ের মহর ও তালাক সংক্রান্ত (৮০৪৮) মুহাম্মদ রেজাউল করিম, সদর, নওগাঁ। জিজ্ঞাসাঃ আমি পড়া-লেখা করা অবস্থায় এক মেয়েকে বিবাহ করি। বিবাহের সময় মহর নির্ধারিত করতে চাইছিল এক লক্ষ টাকা। তাতে আমি রাজি হইনি। আমি বলেছি ২,৫০০ টাকা মহর দিব, তাতে তারা রাজি হয়েছে। কিন্তু তারা বলে যে, সরকারী খাতায় এক লক্ষ টাকা থাকবে, তুমি ২,৫০০ টাকা মহর আদায় করবে, আমি তাতে রাজি হই। তার পরে আমাদের বিয়ে হয়। আমরা দু’জন এক বছর যাবৎ সংসার করি। এক বছর পর আমাদের দু’জনের (স্বামী-স্ত্রী) এর মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি হয়। বিবাদ হওয়ার কারণে তাকে আমি তার বাবার বাড়ীতে রেখে আসি। এবং রেখে আসার সময় আমার শাশুড়িকে বললাম যে, আমি আপনার মেয়েকে তিন বছর পর আমার বাড়ীতে নিয়ে যাব, আমার কথায় তারা রাজি হয়। কিন্তু আমি মাঝে মধ্যে আমার স্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করতাম। হঠাৎ করে শুনতে পেলাম যে, আমার স্ত্রী অন্য […](বিস্তারিত)

Somoy

Editor: Chowdhury Arif Ahmed
Executive Editor: Saiful Alam
Contact: 14/A, Road No 4, Dhaka, Bangladesh
E-mail: dailydhakatimes@gmail.com
© All Rights Reserved Daily Dhaka Times 2016
এই ওয়েবসাইটের কোন লেখার সম্পূর্ণ বা আংশিক আনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি